সত্য এসেছে এবং মিথ্যা বিলুপ্ত হয়েছে। নিশ্চয় মিথ্যা বিলুপ্ত হওয়ারই ছিল।

মাগরিবের ছলাতের ন্যায় বিতর পড়া ও না পড়ার দলীল সমূহের পর্যালোচনা

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

মাগরিবের ছলাতের ন্যায় বিতর না পড়াঃ এই মতটি ছহীহ…

হাদীছ নং ১:

أَخْبَرَنَا أَبُو عَبْدِ اللهِ الْحَافِظُ، أنبأ أَبُو نَصْرٍ أَحْمَدُ بْنُ سَهْلٍ الْفَقِيهُ بِبُخَارَى،


“মূর্তি বিড়ম্বনার ইসলামি আঙ্গিক” এর উপর পর্যালোচনা

লেখক : আহমাদুল্লাহ

ভূমিকা : সম্প্রতি একটি  প্রবন্ধ  আমাদের   হস্তগত হয়েছে। যেখানে জনাব  হাসান  মাহমূদ  নামে এক  ভদ্রলোক  ভাস্কর্য রাখাকে  বৈধ বলেছেন। তাঁর  বক্তব্যের মর্ম  হল  যে,  সুপ্রিম কোর্টের


আস্তে আমীন বলার দলীল সমূহের পর্যালোচনা

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

عَبْدِ الرَّحْمَنِ بْنِ أَبِي لَيْلَى قَالَ: قَالَ عُمَرُ بْنُ الْخَطَّابِ: يُخْفِي الْإِمَامُ أَرْبَعًا : التَّعَوُّذُ، وَبِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ، وَآمِينَ، وَرَبَّنَا لَكَ الْحَمْدُ

১। উমার(রা) বলেন, “ইমাম চারটি বিষয় অনুচ্চস্বরে পড়বে : আউযুবিল্লাহ, বিসমিল্লাহ,


ছলাতের হিফাযাত না করলে ক্বিয়ামাতের দিন সে ক্বারূণ, ফিরআউন, হামান ও উবাই ইবনে খালাফের সাথী হবে


বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

حَدَّثَنَا أَبُو عَبْدِ الرَّحْمَنِ، حَدَّثَنَا سَعِيدٌ، حَدَّثَنِي كَعْبُ بْنُ عَلْقَمَةَ، عَنْ عِيسَى بْنِ هِلَالٍ الصَّدَفِيِّ، عَنْ عَبْدِ اللهِ بْنِ عَمْرٍو، عَنِ النَّبِيِّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ أَنَّهُ: ذَكَرَ الصَّلَاةَ يَوْمًا فَقَالَ: مَنْ حَافَظَ عَلَيْهَا؟ كَانَتْ لَهُ نُورًا،


সিজদায় যাওয়ার আগে হাঁটু রাখার পূর্বে হাত রাখা সুন্নাত

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

সিজদায় যাওয়ার সময় হাতের পূর্বে হাঁটু রাখাঃ এই মতটি দুর্বল…

حدثنا الحسَنُ بن علي وحُسَين بن عيسى، قالا: حدثنا يزيدُ بن هارون، أخبرنا شَريك، عن عاصم بن كُلَيب، عن أبيه عن وائل بن حُجر، قال: رأيت النبىصلى الله عليه وسلم إذا سجدَ وَضَعَ رُكْبتيهِ قبل يديهِ، وإذا نَهَضَ رفع يديه قبلَ رُكبتيهِ


মুহাম্মাদ ইবনুল হাসান আশ-শাইবানী সম্পর্কে অন্যান্য ইমামদের মতামত

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

سَمِعت يحيى يَقُول مُحَمَّد بن الْحسن الشَّيْبَانِيّ لَيْسَ بِشَيْء

১. ইমাম ইয়াহইয়া ইবনে মাঈন বলেন, তিনি কিছুই নন। (আব্বাস দূরী, তারীখু ইবনে মাঈন, বর্ণনা নং ১৭৭০)

حَدَّثَنَا أَحْمَدُ بْنُ مُحَمَّدِ بْنِ صَدَقَةَ


জানাযার ছলাত পড়ার সঠিক এবং দলীল ভিত্তিক পদ্ধতি

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

জানাযার ছলাত পড়ার সঠিক এবং দলীল ভিত্তিক পদ্ধতি

০১. উযূ করুন। [০১]

০২. ছলাতের পূর্বশর্তসমূহ পূরণ করুন। [০২]

০৩. ক্বিবলাহ মুখী হয়ে দাঁড়ানো। [০৩]

০৪. তাকবীর (আল্লাহু আকবার) বলুন। [০৪]

০৫. তাকবীরের সাথে উভয় হাত উত্তোলন করুন। [০৫]

০৬.


মুহাদ্দিছ নুআইম ইবনে হাম্মাদকে নিয়ে পর্যালোচনা

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

মুহাদ্দিছ নুআইম ইবনে হাম্মাদকে নিয়ে আমাদের অনেকের মধ্যে দ্বিমত আছে। বিশেষ করে ইমাম আবু হানীফার ব্যাপারে তাকে অনেকে বিদ্বেষবশত মিথ্যুক বা দুর্বল রাবী বলে থাকেন। তাই তার ব্যাপারে আমি কিছুটা বিস্তারিতভাবে উল্লেখ


“গাযওয়াতুল হিন্দ” এর ব্যাপারে হাদীছসমূহের পর্যালোচনা

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

হাদীছ নং ১:

حَدَّثَنَا أَبُو النَّضْرِ، حَدَّثَنَا بَقِيَّةُ، حَدَّثَنَا عَبْدُ اللهِ بْنُ سَالِمٍ، وَأَبُو بَكْرِ بْنُ الْوَلِيدِ الزُّبَيْدِيُّ، عَنْ


মুখরোচক দ্বঈফ ও জাল হাদীছ (বই)

বইয়ের নামঃ মুখরোচক দ্বঈফ ও জাল হাদীছ প্রকাশনায়ঃ সত্যান্বেষী পাবলিকেশন্স  ফাইল টাইপঃ  পি.ডি.এফ এ পুস্তিকায় আমরা বহুল প্রচলিত এমন কিছু মুখরোচক দুর্বল ও জাল হাদীছ এবং কিছু আক্বীদাহ-আমল বিধ্বংসী ভিত্তিহীন কথা উল্লেখ করব (ইনশাআল্লাহ) যেগুলো আমাদের সমাজে সুপরিচিত এবং আমাদের সমাজের পরহেযগার মুসলিমরা ব্যাপকভাবে আমল করে থাকে। “হাদীছে আছে” বা “আল-হাদীছ” নামে যেসব প্রসিদ্ধ অথচ তা অনতিবিলম্বে পরিত্যাজ্য। আমরা চাই মানুষ বিশুদ্ধ ও গ্রহণযোগ্য হাদীছের উপর আমল করুক। দুর্বল ও বানোয়াট হাদীছের উপর আমল করে ক্ষতিগ্রস্ত না হোক। সন্দেহপূর্ণ আমল না করে নিশ্চিত আমল করুক। ভেজাল ফাদ্বীলাতের পিছনে না ছুটে সহীহ ফাদ্বীলাতে আশান্বিত হোক। ¤  মুখরোচক দ্বঈফ ও জাল হাদীছ – আফফান বিন তৈয়ব  (০১.৪৩ এম.বি)


পুস্তকটি পড়া হলে, শেয়ার করতে ভুলবেন না।


Page 2 of 1412345...10...Last »
Powered by WordPress | Designed by Shottanneshi Research Team