সত্য এসেছে এবং মিথ্যা বিলুপ্ত হয়েছে। নিশ্চয় মিথ্যা বিলুপ্ত হওয়ারই ছিল।

দার্শনিক ইবনে সীনার আক্বীদাহ-বিশ্বাস এবং তার ব্যাপারে আলেমদের মতামত

ইবনে সীনা হচ্ছেন, অতিপ্রসিদ্ধ একজন দার্শনিক। ডাক্তারী বিদ্যায় তিনি জগৎবিখ্যাত। তার নাম হচ্ছে, আবূ আলী হুসাইন বিন আব্দুল্লাহ বিন হাসান বিন আলী বিন সীনা বালখী। তিনি ৩৭০ হিজরীতে জন্মগ্রহণ করেন আর মারা যান ৪২৮ হিজরীতে। তাকে আমরা সবাই মুসলিম


“গাযওয়াতুল হিন্দ” সম্পর্কিত হাদীসসমূহের তাহক্বীক

 

গাযওয়াতুল হিন্দ একটি অতিপরিচিত নাম। নামটা অতিপরিচিত হলেও এর ব্যাপারে সঠিক ধারণা ও বিশ্বাস অতি অপরিচিত। অধিকাংশের অকাট্য বিশ্বাস যে, এই গাযওয়াতুল হিন্দ ঈসা (আঃ) এর যুগে সংঘঠিত হবে। একে কেন্দ্র করে এক শ্রেণির লোক জনসাধারণকে বিভিন্নভাবে প্রলুব্ধ


আদম সন্তানের ভুলকারীদের মধ্যে সেই উত্তম যে তাওবাহ করে মর্মে বর্ণিত হাদীছটি দুর্বল

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

حَدَّثَنَا أَحْمَدُ بْنُ مَنِيعٍ قَالَ: حَدَّثَنَا زَيْدُ بْنُ حُبَابٍ قَالَ: حَدَّثَنَا عَلِيُّ بْنُ مَسْعَدَةَ البَاهِلِيُّ قَالَ: حَدَّثَنَا قَتَادَةُ، عَنْ أَنَسٍ، أَنَّ النَّبِيَّ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ قَالَ: كُلُّ ابْنِ آدَمَ خَطَّاءٌ وَخَيْرُ الخَطَّائِينَ التَّوَّابُونَ

রসূলুল্লাহ(স)


মুসলিম জাতির বয়সসীমা ও ইমাম মাহদী প্রসঙ্গ

 

[সম্প্রতি দেশের বিশিষ্ট একজন আলেম পৃথিবীর বয়স সম্পর্কে একটি বিতর্ক উপস্থাপন করেছেন। তিনি ইমাম মাহদীর সম্ভাব্য আগমনকাল আগামী ২০১৯/২০২০ সাল বলে মন্তব্য করায় অনেকের মনে প্রশ্নের উদয় হয়েছে। ১৯৯৬ সালে জনৈক মিসরীয় লেখক আমীন মুহাম্মাদ জামালুদ্দীন


কুতুবে সিত্তাহ’র ছুলাছিয়াত সমগ্র (বই)

 

বইয়ের নামঃ কুতুবে  সিত্তাহ’র  ছুলাছিয়াত সমগ্র সংকলকঃ আফফান বিন তৈয়ব প্রকাশনায়ঃ সত্যান্বেষী পাবলিকেশন্স  ফাইল টাইপঃ  পি.ডি.এফ    

বাংলা ভাষায় ছুলাছিয়াত সম্পর্কে তেমন পরিচিতি নেই। ছুলাছিয়াত হল সেই হাদীছ যার রাবী সংখ্যা মাত্র তিনজন। অর্থাৎ হাদীছ সংকলক থেকে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পর্যন্ত পৌঁছতে তিনজন রাবীর মধ্যস্ততা।

 

হাদীছ বিষয়ে অত্যধিক আগ্রহ


ইমাম বুখারীর কিতাবসমূহের বিভ্রান্তি নিরসন

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

বর্তমানে কিছু কিছু ভাই ইসলামের কিছু মাস’আলা নিয়ে অনেক কিছু লেখালেখি করছেন। কোন কিছু বলার বা লেখার অধিকার সবারই আছে। কিন্তু ইসলামিক কিছু লিখতে হলে অনেক যাচাই করে লেখা উচিত। কেননা আপনি যদি কোন ভুল করেন সেই দায়ভার শুধু


আসরের পর (সূর্য উঁচুতে থাকা অবস্থায়) নফল সলাত আদায়ের কোন প্রমাণ আছে কি?

 

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) বলেনঃ ‘নিশ্চয়ই তোমাদের পশ্চাতে রয়েছে একটি ধৈর্যের যুগ। সে সময় যে ব্যক্তি সুন্নাতকে শক্ত করে আকড়ে ধরে থাকবে, সে ৫০ জন শহীদের সমান নেকী পাবে’। উমার (রাঃ) বললেন, হে আল্লাহর রাসূল! আমাদের মধ্য থেকে ৫০ জন নাকি তাদের? তিনি বললেন, ‘তোমাদের


শাইখ আলবানী কি শবেবরাতের হাদীসকে সাহীহ বলেন নি?

(১৪০০৮৪) আমরা কেন উল্লেখ করছি না যে শাইখ আলবানী (রহঃ) মধ্য শাবানের রাতের ফযিলতের হাদীছকে ছহীহ বলেছেন?

প্রশ্নঃ 

আবু মুসা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, “আল্লাহ মধ্য শাবানের রাতে আত্নপ্রকাশ করেন এবং মুশরিক ও হিংসুক ব্যতীত তাঁর সৃষ্টির সকলকে ক্ষমা করেন।”


হাফিয যুবাইর আলী যাঈ(র) কে নিয়ে মাওলানা লুৎফুর রহমান ফরায়েজীর মিথ্যাচার

বিসমিল্লাহির রহমানির রহীম

মাওলানা লুৎফুর রহমান ফরায়েজী আমাদের দেশের একজন সুপরিচিত হানাফী আ’লিম। তিনি হানাফী মুহাদ্দিছ হাবীবুর রহমান আযমী(র) এর তাহক্বীক্বের পক্ষপাতিত্ব করতে গিয়ে হাফিয যুবাইর আলী যাঈ(র) কে নিয়ে অনেক বাজে মন্তব্য করেছেন ও


তাশাহহুদে তর্জনী (শাহাদাত অঙ্গুলি) উঠানো

তাশাহহুদে তর্জনী (শাহাদাত আঙ্গুল) দিয়ে ইশারা করা যে সুন্নাত, এ বিষয়ে সকল আলেম একমত। সম্ভবত এর কারণ হল, এ বিষয়ের উপর যত হাদীস বর্ণিত হয়েছে সেগুলো থেকে অন্তত এটা প্রমাণিত হয় যে, আল্লাহর রাসূল (সাঃ) যখন তাশাহহুদের জন্য বসতেন, তখন তাঁর তর্জনী উঠাতেন


Page 1 of 1412345...10...Last »
Powered by WordPress | Designed by Shottanneshi Research Team